ইসলামিক২৪.কম

ইসলামিক২৪.কম

সারাদেশে খেটে খাওয়া মানুষের পাশে দাঁড়াচ্ছে আলেম সমাজ

  • পোস্টটি প্রকাশিত হয়েছে - ৩০ মার্চ, ২০২০, সোমবার
  • 84 বার দেখা হয়েছে
  •  

    রেদওয়ান বিন মোর্তজা: দেশে চলমান করোনা ভাইরাস সংকটে সবচে’ বেশি কষ্টে আছেন নিম্নআয়ের মানুষ। তাদের কাছে ভাইরাসে আক্রান্ত হওয়ার চেয়েও বেশি ভয়াবহ ক্ষুধার যন্ত্রণা। নেই জমানো টাকা, নেই কাজ। করোনার প্রভাবে নগরজীবনে নেমে এসেছে স্থবিরতা। বন্ধ ব্যবসা-বাণিজ্যসহ সকল প্রতিষ্ঠান। এমন দুর্যোগের মুহূর্তে অনিশ্চয়তায় দিন কাটছে দেশের প্রায় তিন কোটি শ্রমজীবী ক্ষুদ্র আয়ের মানুষের।

    ঢাকাসহ সারাদেশে এই প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর সহায়তার হাত বাড়িয়ে দিচ্ছে বিভিন্ন সামাজিক সেবামূলক প্রতিষ্ঠান। এক্ষেত্রে পিছেয়ে নেই আলেম সমাজও। কওমি ঘরানার বহু প্রতিষ্ঠান সারাদেশে নামে বেনামে কাজ করে যাচ্ছে।

    বেসরকারি সামাজিক সেবামূলক প্রতিষ্ঠান ‘হাফেজ্জি হুজুর রহ. সেবা সংস্থা’ শনিবার রাজধানীর মোহাম্মদপুরে ৭১ জন অসহায় নিম্ন আয়ের মানুষের মাঝে ঘরের নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্য ও জীবনোপকরণ বিতরণ করে।

    একটি অসহায় পরিবারের সহায়তা প্যাকেজে কী কী দেয়া হচ্ছে জানতে চাইলে সংস্থার পরিচালক মাও. রজিবুল হক বলেন, আমরা প্রতিটি প্যাকেজে ১০ কেজি চাল, ২ কেজি আটা, ২ কেজি আলু, ১ কেজি ডাল, ১ কেজি পেয়াঁজ, ১ লিটার তেল, ১ কেজি লবন ও ২টি সাবান দিচ্ছি।

    তিনি জানান, দেশের চলমান সংকট নিরসনের পূর্ব পর্যন্ত প্রতি তিনদিন পর পর আমাদের এ কার্যক্রম চলবে।

    এদিকে তরুণ আলেম ও সমাজকর্মী মাও. ইমরান হুসাইন হাবিবী কর্তৃক পরিচালিত ‘পিপলস ইম্প্রুভমেন্ট সোসাইটি অফ বাংলাদেশ’ সারাদেশের দুঃস্থ মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে দিচ্ছে পরিবারের নিত্যপ্রয়োজনীয় বাজার সদায়।

    সংস্হাটি শনিবার দেশের আটটি জেলায় একযোগে জেলা প্রতিনিধিদের মাধ্যমে স্বল্প আয়ের শতাধিক অসহায় পরিবারের মাঝে নিত্যপ্রয়োজনীয় খাদ্যদ্রব্য ও জীবনোপকরণ বিতরণ করে।

    রাজধানী ঢাকা ছাড়াও কুড়িগ্রাম, লালমনিরহাট, দিনাজপুর, পঞ্চগড়, খুলনা, বাগেরহাট, ভোলা, বরিশাল, নরসিংদী, জামালপুর, কক্সবাজারসহ দেশের ১৪ টি জেলায় ইতোমধ্যে তাদের পক্ষ থেকে ত্রাণ পৌঁছে গেছে। পর্যাযক্রমে সারাদেশে তাদের এ কার্যক্রম চলবে বলে জানান সংস্থার পরিচালক মাও.ইমরান হুসাইন হাবিবী।

    জনসাধারণের অনুদানে পরিচালিত সংস্থা দু’টির সাথে কথা বলে জানা যায়, প্রান্তিক জনগোষ্ঠীর সহায়তায় সারাদেশের অসংখ্য মানুষ তাদের আহ্বানে সাড়া দিচ্ছেন। তবে চাহিদার তুলনায় তা খুবই অপ্রতুল। তাই মানবতার সেবায় তারা সমাজের বিত্তবানদের এ কাজে উদারচিত্তে এগিয়ে আসার আহ্বান জানিয়েছেন।

    এছাড়াও খেটে খাওয়া মানুষের ঘরে ঘরে সহায়তা প্রদানের উদ্যোগ নিয়েছেন উত্তরা বাইতুল মুমিন মাদরাসার পরিচালক মুফতি নেয়ামতুল্লাহ আমিন। দেশের এ সংকটময় মুহূর্তে মানুষ যখন কার্যত গৃহবন্দি তখন মাঠে ময়দানে কওমি আলেমরা মানবসেবায় প্রশংসনীয় ভূমিকা রাখছেন।

    
    এই পোস্টে কোন মন্তব্য নেই!

    একটি মন্তব্য করুন


    অ্যাকাউন্ট প্যানেল

    আমাকে মনে রাখুন

    সকল বিভাগ